শেষ হলো চতুর্দশ জাতীয় শিশু কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব

0

ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির চতুর্দশ জাতীয় শিশু কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব। প্রতিদিনই আসরে ভিড় করেছেন সর্বস্তরের নাট্য ও সংস্কৃতিপ্রেমীরা। আয়োজনকে ঘিরে প্রতিদিন নানা বয়স ও পেশার মানুষের সরব পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে সারা দেশের শিশু-কিশোরদের নিয়ে অনুষ্ঠেয় বৃহত্তর এই সাংস্কৃতিক আসর।

২৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার উৎসবের ৮ম দিন  বিকাল ৫টা থেকে একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে কৃষাণ চন্দ্র এর গল্প অবলম্বনে কাজী তৌফিকুল ইসলাম ইমন-এর নাট্যরূপ ও নির্দেশনায় রাজধানীর উত্তরার স্কলাস্টিকা স্কুল এন্ড কলেজ পরিবেশন করে নাটক ‘গর্ত’, উপেন্দ্র কিশোর রায় চৌধুরীর গল্প অবলম্বনে অসীম দাস-এর নাট্যরূপে ও ড. সৌরভ শাখাওয়াত-এর নির্দেশনায় কিডস কালচারাল ইন্সটিটিউট চট্টগ্রাম মঞ্চায়ন করে নাটক ‘বেচারাম কেনারাম’, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে লিয়াকত আলী লাকীর নির্দেশনায় পিপলস লিটল থিয়েটার-ঢাকা মঞ্চস্থ করে নাটক রাজা ও রাজদ্রোহী, এস এম রায়হানুল আলমের রচনা ও নির্দেশনায় সুপ্তো থিতা ঢাকা’র নৃত্যনাট্য, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে জিনাত সানু স্বাগতা’র নির্দেশনায় আনন্দম ঢাকা’র নাটক ‘খ্যাতির বিড়ম্বনা’ এবং মো. মিনারুল ইসলাম জুয়েল’র রচনা ও নির্দেশনায় মাগুড়া জেলা শিল্পকলা একাডেমি শিশু নাট্যদল মঞ্চস্থ করে নাটক ‘অসঙ্গতি’।

গত ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বিকাল ৫টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে উদ্বোধনীর মধ্য দিয়ে শুরু হয় শিশু কিশোর নাট্য ও বিভিন্ন শাখার শিশু শিল্পীদের অংশগ্রহণে দেশের সবচেয়ে বড় আয়োজন ‘চতুর্দশ জাতীয় শিশু কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯’। 

সহস্রাধিক শিশু-কিশোরের অংশগ্রহণে উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। এর আগে জাতীয় নাট্যশালা প্রাঙ্গণে অতিথিরা বেলুন উড়িয়ে নয় দিনব্যাপী উৎসবের উদ্বোধন করেন। একইসাথে শিল্পী মোস্তাফা মনোয়ার রং তুলির আঁচড়ে শিশু চিত্রাঙ্কনের উদ্বোধন করেন।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও পিপলস থিয়েটার এসোসিয়েশন’র যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ‘চতুর্দশ জাতীয় শিশু-কিশোর নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৯’। ৬৪ জেলার সাংস্কৃতিক দল এবং ৯৫টি শিশু নাট্য সংগঠনের দশ হাজারেরও বেশি শিশু-কিশোরের অংশগ্রহণে ২০-২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। 

উৎসবে একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা, জাতীয় চিত্রশালা, জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তন ও একাডেমি প্রাঙ্গণসহ প্রতিদিন ৮টি ভেন্যুতে ৯টি জেলার ৮৫টি পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়। ২৮ সেপ্টেম্বর নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় এবারের সারাদেশের শিশু-কিশোর নিয়ে আয়োজিত বর্ণাঢ্য এই নাট্য ও সাংস্কৃতিকযজ্ঞ।

Follow and like:

Leave A Reply